• Home
  • Blogging Guide

সম্পূর্ণ ফ্রি প্রফেশনাল ওয়েবসাইট তৈরি করুন ব্লগস্পটে আর টাকা ইনকাম করুন, Create Free Website in Blogger/Blogspot and Earn Money Bangla Guide 2021

যারা বিগিনার ব্লগার রয়েছেন। অর্থাৎ সদ্য সদ্য ব্লগ তৈরি করেছেন। অথবা একটি ব্লগ তৈরি করার (Create a free blog) কথা ভাবছেন। যেখানে আপনি পার্ট টাইম ইনকাম (part time income) করতে চান। তাহলে তাদের জন্য ব্লগিং (blogging) একটি লোভনীয় জায়গা। আর আপনার মনেও যদি প্রশ্ন আসে কিভাবে ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি করা যায়? (How to create free website/ kivabe free website toiri kora jay?)

বা কিভাবে ফ্রিতে ব্লগ তৈরি করবেন?(How to create free blog? kivabe free blog toiri kora jay?) বা কিভাবে বিনামূল্যে Blogspot Blog তৈরি করা যায়?

তাহলে আজ খুব সহজেই আপনাকে জানিয়ে দেবো কিভাবে আপনি বিনামূল্যে ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারবেন। এবং এই ওয়েবসাইট থেকে লাখ লাখ টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

অবশ্যই এই পদ্ধতিতে আপনার ফ্রি ব্লগ তৈরি করে নিন। আর তার পর জেনে নিন ব্লগ থেকে কিভাবে টাকা ইনকাম করা যায়

চলুন জেনে নেওয়া যাক কিভাবে আপনি ব্লগার বা ব্লগস্পটে ফ্রিতে অর্থাৎ বিনামূল্যে ব্লগ তৈরি করতে পারবেন। এবং আপনার স্বপ্নকে বাস্তবায়িত করতে পারবেন।

কিভাবে ব্লগার বা ব্লগস্পটে ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারবেন?

সম্পূর্ণ বিনামূল্যে এই ওয়েবসাইট তৈরি করব আমরা এখানে।

অর্থাৎ এক্ষেত্রে কোন রকম Hosting এর জন্য টাকা লাগবে না আপনার।

লাগবে না কোনও ডোমেইন নেমের জন্য টাকা। তবে পরবর্তীকালে অবশ্যই কাস্টম ডোমেইন নেম যোগ করতে পারবেন এর সাথে।

সেক্ষেত্রে ডোমেইন নেম কেনার জন্য তো টাকা দিতেই হবে। তবে সেটা পরের ব্যাপার।

Blogger/BlogSpot- এ ফ্রি ওয়েবসাইট ক্রিয়েট করার জন্য প্রথমেই Google ওপেন করে নিন। তারপর আপনি সার্চ করে নিন Blogger।

প্রথমেই Google ওপেন করে নিন। তারপর আপনি সার্চ করে নিন Blogger

তাহলেই দেখুন যে পেজটি খুলে যাবে সেখানে প্রথমেই দেওয়া রয়েছে blogger.com, Create a Beautiful Blog। সেটাতে ক্লিক করে দিন। 

ক্লিক করলেই পরের পেজে Publish Your Passion, Your Way  লেখা  দেখতে পাবেন…

সেখানে ক্লিক করলেই পরের পেজে Publish Your Passion, Your Way  লেখা  দেখতে পাবেন। তার নিচে লেখা রয়েছে Create a Unique and Beautiful Blog. It’s Easy and Fee ! 

তার নিচেই আপনি দেখতে পাবেন Create Your Blog। এই Create Your Blog অপশনটিতে আপনাকে ক্লিক করতে হবে।

এই অপশন টিতে আপনি ক্লিক করবেন। তারপরের পেজে আপনার Google একাউন্টে Sign In করতে বলা হবে।

Blogger/Blogspot-এ ফ্রি ওয়েবসাইট করার জন্য আপনার জিমেইল থাকা বাধ্যতামূলক। কিভাবে নিজের জিমেইল একাউন্ট খুলবেন জেনে নিন এখানে!

আর অন্য কোন কিছুর প্রয়োজন নেই। অবশ্যই আপনার ব্লগ আপনি যে বিষয়ের উপর তৈরি করছেন সেই বিষয়ে সম্পর্কে আইডিয়া থাকা প্রয়োজন।

আপনার Google একাউন্টে Sign In করতে বলা হবে…

এই Sign In পেজে আপনার ইমেইল আইডি অথবা ফোন নাম্বার দিন। Next অপশনে ক্লিক করুন। 

Next অপশনে ক্লিক আপনার ইমেইল আইডির পাসওয়ার্ড দিন। তারপর Sign In করুন।

আপনার ব্লগের নাম সিলেক্ট (Select Your Blog Name) করতে বলা হবে…

Sign In করার পর আপনাকে আপনার ব্লগের নাম (Select Your Blog Name) সিলেক্ট করতে বলা হবে।

Title লেখা রয়েছে যে জায়গাটিতে সেখানে আপনার ব্লগের নাম (Name for your Blog) সিলেক্ট করে নিন।

এক্ষেত্রে আপনি 0 থেকে 100 লেটার এর মধ্যে আপনার ব্লগের নাম সিলেক্ট করতে পারবেন।

যেকোন নাম দেওয়ার পর Next অপশনে ক্লিক করে দিন। আপনি চাইলে এই অপশন থেকে এখন Skip করতেও পারেন।

আমরা এখনই নাম দিয়ে দেবো আমাদের ব্লগের। 

ব্লগের URL আপনাকে সিলেক্ট করতে বলা হবে…

পরবর্তী পেজে দেখুন ব্লগের URL আপনাকে সিলেক্ট করতে বলা হবে।

এইখানে আপনি যেটি সিলেক্ট করবেন তার সাথে ডট blogspot.com এসে যাবে। 

সেটাই হবে আপনার ফুল ওয়েবসাইট URL। জিমেইলের ইউজারনেম সিলেট করার মতোই এখানে যখন আপনি পছন্দের ইউজারনেম লিখতে হবে।

সেই ইউজারনেম যদি অ্যাভেলেবল থাকে তাহলে দেখিয়ে দেওয়া হবে This Blog Address is Available।

কিন্তু সেই ব্লগ অ্যাড্রেস যদি এভেলেবেল না থাকে তাহলে সেখানে দেখিয়ে দেওয়া হবে This Blog Address is Unavailable!

এইরকম যদি হয় তাহলে আপনার নামের একটু হেরফের করে যে ব্লগ অ্যাড্রেস(Blog URL) এভেলেবেল রয়েছে সেই এড্রেস টা কে সিলেক্ট করে নিন।

তা করে নেওয়ার পর Next অপসনে ক্লিক করে দিন। 

আপনার ব্লগের Display Name নেওয়া হবে…

Next অপশনে ক্লিক করার পর আপনার ব্লগের Display Name নেওয়া হবে।

অর্থাৎ আপনার ব্লগের যে নাম দিতে চান সেই নামটি চাওয়া হবে। সেই নামটি এখানে আবার টাইপ করে দিন। 

তারপর Finish অপশনে ক্লিক করে দিন।

তাহলেই আপনি আপনার Blogger বা Blogspot একাউন্টের Dashboard-এ চলে যাবেন। এখানে আপনার ব্লগ সম্পর্কিত সমস্ত কাজকর্ম করতে পারবেন।

Blogger Logo এর নিচেই দেখুন আপনার ব্লগের নাম দেওয়া থাকবে…

এর মধ্যে Blogger Logo এর নিচেই দেখুন আপনার ব্লগের নাম দেওয়া থাকবে। তার নিচে সমস্ত প্রয়োজনীয় অপশনস গুলো রয়েছে।

জানেন কি : স্টুডেন্ট অবস্থায় টাকা ইনকাম করার শ্রেষ্ঠ পদ্ধতি, Earn Money Online as a Student

একদম নিচে চলে গিয়ে আপনি পেয়ে যাবেন View Blog অপশন।

এই অপশনটিতে ক্লিক করে আপনার ব্লগ এর বর্তমান পরিস্থিতি নতুন একটি উইন্ডো তে দেখে নিতে পারবেন।

আমরা আমাদের এই ব্লগটি কাস্টমাইজেশনের কাজ শুরু করব…

এবার আমরা আমাদের এই ব্লগটি কাস্টমাইজেশনের কাজ শুরু করব।

এই কাজ শুরু করার জন্য বাঁদিকে Menu-র মধ্যে Theme অপশনে চলে যান। 

আপনার পছন্দের থিমটির উপরে ক্লিক করুন তাহলেই দেখুন Preview…

Theme অপশনে গেলে আপনাকে অনেকদিন দেখিয়ে দেওয়া হবে।

এই Theme গুলোর মধ্যে আপনার পছন্দের থিমটির উপরে ক্লিক করুন তাহলেই দেখুন Preview, Customize এবং Apply অপশন পেয়ে যাবেন। 

Preview অপশনে গিয়ে আপনি দেখে নিতে পারবেন এই থিমটি আপনার ব্লগে কেমন দেখতে লাগবে।

Customize অপশনে গিয়ে এই থিমের কাস্টমাইজেশন করতে পারবেন। সমস্ত কিছু ঠিকঠাক হয়ে গেলে Apply অপশনে ক্লিক করে দিন। 

তাহলেই এই থিমটি আপনার ওয়েবসাইটে সেট হয়ে যাবে। এর পর থেকে আপনার ওয়েবসাইট ঠিক এই ডিজাইনের মতোই দেখতে লাগবে। 

এই ওয়েবসাইটে পেজ তৈরি করা শিখব…

এরপরে আমাদের এই ওয়েবসাইটে পেজ তৈরি করা শিখব। সেটা করার জন্য অর্থাৎ এই ব্লগার সাইটের একটি পেজ তৈরি করার জন্য আবার বাঁদিকের Menu টা দেখুন।

সেখানে দেখুন Pages অপশন রয়েছে। সেই অপশনটিতে ক্লিক করুন।

যদি Page অলরেডি তৈরি করা থাকে তাহলে দেখিয়ে দেওয়া হবে কোন কোন পেজগুলো তৈরি রয়েছে।

আর যদি কোন পেজ না তৈরি থাকে। তাহলে There are no Posts অপশন দেখিয়ে দেওয়া হবে। 

তারপর উপরে থাকা প্লাস আইকনের পর নিউ পেজ (+ NEW PAGE) অপশনটিতে ক্লিক করে দিন।

আপনার ওয়েবসাইটের পেজ তৈরি করতে পারবেন…

নিউ পেজ অপশনটিতে ক্লিক করলেই পরবর্তী যে পেজটি খুলবে সেখানে আপনি আপনার ওয়েবসাইটের পেজ তৈরি করতে পারবেন।

প্রথমে দেখুন Title of Page দেওয়া রয়েছে। সেটা দিয়ে দিন।

Page তৈরি করার সাথে সাথে এখানে আপনি পুরোপুরি কাস্টমাইজেশন করতে পারবেন।

আপনার পেজের মধ্যে আপনি ছবি বা ভিডিও অ্যাড করতে পারবেন। তারই সাথে বিভিন্ন ধরনের ফন্ট ব্যবহার করতে পারবেন।

প্রয়োজন হলে সেই ফন্ট কে বোল্ড বা আন্ডারলাইন করতে পারবেন। কালার চেঞ্জ করতে পারবেন। সমস্ত ধরনের কাজকর্মই আপনি করতে পারবেন এখানে। আপনার এই জায়গা থেকেই। 

তাই টাইটেল এর জায়গায় আপনার পেজের টাইটেল দিয়ে দিন। তারপর সেই Page সম্পর্কিত বিষয় বস্তু নিচের ফাঁকা জায়গাটিতে লিখে দিন।

লিখে দেওয়ার পর পেজটিকে আমাদের পাবলিশ করতে হবে। তবেই আমরা এই পেজটিকে ওয়েবসাইটে দেখতে পারবো। 

সেটা করার জন্য ডানদিকে ওপরের কোনায় Publish আইকনে ক্লিক করে দিন। তাহলেই আপনার কাছ থেকে কনফার্মেশন চেয়ে নেওয়া হবে। Confirm অপশনে ক্লিক করে দিন।

তাহলেই আপনার তৈরি করা Page পাবলিশ হয়ে যাবে। 

এভাবে আপনার প্রয়োজনীয় পেজ আপনি তৈরি করতে পারবেন। কাস্টমাইজেশন করতে পারবেন। এবং পাবলিশ করতে পারবেন। 

ব্লগের মধ্যে basic কিছু সেটিংস যদি আপনি চেঞ্জ করতে পারবেন…

এই কাজটি মিটে যাওয়ার পর ব্লগের মধ্যে basic কিছু সেটিংস যদি আপনি চেঞ্জ করতে পারবেন।

যদি তা করতে চান তাহলে এই বাঁদিকের মেনুর মধ্যে সেটিংস অপশন (Settings) আপনাকে বেছে নিতে হবে।

সেখানে গিয়ে ব্লগের টাইটেল(Blog Title) থেকে শুরু করে ডেসক্রিপশন(Blog Description) বা ব্লগের ল্যাঙ্গুয়েজ(Blog Language)।

আপনার ব্লগ যদি ইংরেজি ছাড়া অন্য কোন ভাষাতে হয়। বা বাংলা ভাষাতেও যদি হয়। তাহলে তা সিলেক্ট করে নিতে পারবেন।

আপনার ব্লগে ট্রাফিক ট্র্যাক করার জন্য গুগল এনালাইটিক্স প্রপার্টি আইডি(Google Analytics Property ID) অ্যাড করতে পারবেন এখান থেকেই। 

বলা যায় এই সেটিংসে গিয়ে ব্লগের খুঁটিনাটি আপনি সেটআপ করতে পারবেন। সমস্ত কিছু সেটাপ করে নেওয়ার পর আমাদের ব্লগ পোস্ট করার পালা। 

কিভাবে ব্লগার বা ব্লগস্পটে ব্লগ পোস্ট করবেন?

ব্লগার বা ব্লগস্পট ওয়েবসাইটে পোস্ট ব্লগ পোষ্ট করার জন্য উপরে দেখুন। খেয়াল করুন আপনার ওয়েবসাইটের নামের নিচে New Post অপশন রয়েছে।

সেই New Post অপশন টিতে ক্লিক করলেই ঠিক আগে পেজ তৈরি করার মত এক পেজ খুলে যাবে।

যেখানে আপনি নতুন পোস্ট লিখতে পারবেন। প্রয়োজনে সেই পোষ্টের মধ্যে ছবি বা ভিডিও এড করতেও পারবেন।

সমস্ত কিছু কমপ্লিট করে তা পোস্ট করে দিতে পারবেন আপনার ওয়েবসাইটে। 

এরই মাঝে আপনাকে আমাদের সাথে সোশ্যাল মিডিয়াতে যুক্ত হয়ে যাওয়ার জন্য অনুরোধ করি। ! সেখানে সব সময় গুরুত্বপূর্ণ আলোচনা চলে যেগুলো আপনাদের অনেক উপকারে লাগবে।

কেন ব্লগার বা ব্লগস্পটে আপনার প্রথম ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি করবেন? Why Use Blogger/Blogspot? 

ব্লগ তৈরি করার আগে অনেকেই ব্লগ সম্পর্কে কিছু ভালোভাবে জানেনই না। এই অবস্থায় ভালোভাবে রিসার্চ না করেই অত্যুৎসাহী হয়ে যান অনেকেই। এর ফলে ভুক্ত হয় তাদের। 

কারণ অনেক টাকা খরচ করে সেলফ হোস্টেড ব্লগ (Self Hosted Blog) তৈরি করে পরবর্তীকালে সেই ব্লগকে চালিয়ে যাওয়ার ক্ষমতা অনেকেরই থাকে না।

সেই ব্লগকে কন্টিনিউ করার ধৈর্য অনেকেই মিস করেন। তাই অবধারিত ভাবেই সেই ব্লগ বন্ধ করে দেন। 

এর সবথেকে বড় কারণ হল ব্লগ সম্পর্কে সম্যক ধারণা না থাকা। তারা জানেন না কিভাবে কন্টেন্ট ক্রিয়েট করতে হয়। জানেন না ব্লগিং চালিয়ে যেতে কতটা পরিশ্রম করতে হয়। 

এই পরিস্থিতির জন্যই সবথেকে ভাল অপশন হল ব্লগার (Blogger) এর মত ফ্রী প্লাটফর্ম। এখানে প্রথম আপনার ব্লগ/ ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরী করার ফলে আপনি আপনার ধৈর্য্য বা লেখার ক্ষমতা যাচাই করে নিতে পারবেন।

আপনি পরীক্ষা করে নিতে পারবেন এই কাজের প্রতি আপনার অধ্যবসায় কতটা। 

এর পর আপনার যদি মনে হয় আপনি ব্লগিং চালিয়ে যেতে পারবেন। তাহলে পরবর্তীকালে আপনি সেল্ফ হোস্টেড ব্লগিং অবশ্যই শুরু করতে পারবেন। তার সুবিধাও অনেক। 

জানেন কি : ফ্রিল্যান্সিং কি? কিভাবে শুরু করবেন? Bangla Freelancing Guide 2021

কিন্তু এক্ষেত্রে প্রথমেই হোস্টিং এর জন্য কোন রকম টাকা খরচ করতে হবে না আপনাকে। নিঃসন্দেহে এটা একটা দারুন ব্যাপার। 

তাই যারা বিগিনার ব্লগার রয়েছেন তারা তাদের দক্ষতাকে ঝালিয়ে নিতে পারবেন এখান থেকে। আর সেটা করতে পারবেন সম্পূর্ণ বিনামূল্যে। 

হোস্টিং এর জন্য এক পয়সাও দিতে হবেনা আপনাকে। আপনার ফ্রি ওয়েবসাইট স্লো হয়ে যাওয়ার কোন রকম ভয় থাকবে না। 

আপনি নির্ঝঞ্ঝাট থেকে শুধুমাত্র ভালো মানের কন্টেন্ট ক্রিয়েশনের দিকেই মন দিন। অন্য কিছু নিয়ে আপনাকে চিন্তা করতে হবে না। 

তাই বিগিনারদের জন্য ব্লগস্পট হল একটি দারুন প্লাটফর্ম।

2003 সালে গুগল এই Blogger প্ল্যাটফর্মকে কিনে নেয়।  বর্তমানে এটি গুগলের অধীনে রয়েছে। তাই সিকিউরিটি বা এর সার্ভিস নিয়েও আপনাকে কোন রকম চিন্তা করতে হবে না।

আপনি নির্দ্বিধায় ব্লগারকে ব্যবহার করুন। এবং বেসিক লেভেলের ওয়েবসাইট তৈরী করে বিনামূল্যে আপনি আপনার প্রয়োজন মেটান।

তাই আপনি যদি হ্যাকিং বা ওয়েবসাইট স্লো হয়ে যাওয়া কে ভয় পান। সে ক্ষেত্রে আপনাকে অত চিন্তা করতে হবে না।

কারণ এর সাথে রয়েছে গুগলের সিকিউরিটি। তাই এর মধ্যে আপনি চিন্তামুক্ত সুন্দর ব্লগিংয়ের এক্সপিরিয়েন্স পাবেন। 

শুধু মাত্র এখানেই থেমে থাকছে না এই ব্লগ থেকে আপনি টাকা ইনকাম করতে পারবেন খুব সহজেই। ইন্টারনেটে টাকা ইনকাম করা এখন আর মিথ নয়।

এমনকি খুব ভালোভাবেই ইউটিউব থেকে টাকা ইনকাম করতে পারে যায়। তার জন্য অসংখ্য পদ্ধতি রয়েছে। 

আর এক্ষেত্রে যখন আপনার ওয়েবসাইটে ট্রাফিক আসতে থাকবে খুব ভালো রকম। তখন আপনি নন হোস্টেড এডসেন্সের জন্য এপ্লাই করতে পারবেন।

যার এপ্রুভাল খুব সহজেই পাওয়া যায়। সেই ভাবেই আপনি সেখান থেকে আর্ন করতে পারবেন। 

এইভাবেই আপনার প্যাশনকে ধীরে ধীরে প্রফেশনে রূপান্তরিত করে তুলতে পারবেন।

আর মজার ব্যাপার হল এর জন্য আপনাকে এক্সট্রা কোন রকম টাকা খরচ করতে হচ্ছে না। এটাই ব্লগারের সবথেকে ভালো সুবিধা। 

সব শেষে নিঃস্বন্দেহে বলা যায় যে ব্লগার বা ব্লগস্পট খুবই সহজ সরল একটি প্লাটফর্ম। এখানে খুব সহজেই আপনি আপনার পছন্দমত বিষয়ে ব্লগ তৈরী করতে পারবেন।

সেই ব্লগে পরবর্তীকালে খুব সহজেই আপনি পোস্ট করতে পারবেন। আপনার প্রয়োজন মত বেসিক কিছু কাস্টমাইজেশনও করতে পারবেন খুব সহজেই।

জানেন কি : ইনস্টাগ্রাম থেকে কিভাবে টাকা ইনকাম করবেন ? জেনেনিন বিস্তারিত ভাবে

তাই এককথায় বলা যায় ব্লগস্পট বা ব্লগার অত্যন্ত সহজ সরল একটি প্ল্যাটফর্ম।

এটি বিগিনারদের জন্য অত্যন্ত ভালো একটি ব্লগিং প্লাটফর্ম। 

ব্লগার ও ফ্রি ওয়েবসাইট ব্যাপারে আপনার মনে আসা প্রশ্নের উত্তর খুঁজে নিন!

ব্লগ থেকে টাকা ইনকাম করা সম্ভব?

হ্যাঁ। ব্লগ থেকে টাকা ইনকাম করার বহু পদ্ধতি রয়েছে। আপনি সেই সমস্ত পদ্ধতিগুলোর অবলম্বন করে ব্লগ থেকে লাখ লাখ টাকা ইনকাম করতে পারবেন। 

ফ্রিতে ব্লগ তৈরি করা যায়? 

হ্যাঁ। একদমই ফ্রিতে ব্লগ তৈরি করা যায়। তবে সেই সমস্ত ব্লগের কিছু লিমিটেশন্স থাকে নিশ্চিত ভাবেই। অপরদিকে আপনি যদি ব্লগিং শুরু করতে চান। তাহলে এই বিনামূল্যে ব্লগ আপনার জন্য আদর্শ। উপরিউক্ত পদ্ধতির মাধ্যমে আপনি বিনামূল্যে ব্লগ তৈরি করতে পারবেন এর জন্য এক পয়সাও আপনাকে দিতে হবে না। 

ফ্রি ব্লগার ওয়েবসাইট থেকেও কি টাকা ইনকাম করা সম্ভব? 

অবশ্যই সম্ভব। ফ্রী ব্লগার ওয়েবসাইট থেকেও টাকা ইনকাম করছেন এমন নিদর্শন অনেক। আপনি যদি ব্লগিং ক্ষেত্রে একজন বিগিনার হন। তাহলে অবশ্যই ফ্রিতে ব্লগারে একটি ব্লগ তৈরী করুন। আপনার ব্লগ যদি ভাল রকম চলে তাহলে সেখান থেকে ইনকাম করবেন। এই ইনকামের নির্দিষ্ট কোনো লিমিটেশন থাকবে না।

ব্লগার বা ব্লগস্পট কি?

ব্লগার বা ব্লগস্পট একটি প্লাটফর্ম। যেখানে আপনি বিনামূল্যে ব্লগ তৈরি করতে পারবেন। এর মধ্যে বেশির ভাগ আধুনিক সুবিধাই আপনি পেয়ে যাবেন। এখানে ব্লগ তৈরী করতে আপনাকে এক পয়সাও দিতে হবে না। এই প্ল্যাটফর্ম 2003 সাল থেকে গুগলের অধীনে রয়েছে।

এইভাবে আপনি Blogger/Blogspot ব্যবহার করে আপনার ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি করুন। আর উপভোগ করুন গুগলের এই বিনামূল্যের পরিষেবাটিকে।

আমাদের সমস্ত আপডেট সরাসরি পেতে Facebook , Twitter Instagram ও YouTube -এ তে আমাদের সঙ্গে থাকুন, শ্রেষ্ঠ থাকুন!

Click Here to Leave a Comment Below 0 comments

Leave a Reply:

error: Content is protected !!